মেনু নির্বাচন করুন

কালেক্টরেট সুরভি উদ্যান

কালেক্টরেট সুরভি উদ্যান

কালেক্টরেট সুরভি উদ্যান ভ্রমণ পিপাসু শিশু কিশোর, তরুণ-বৃদ্ধসহ সর্বস্তরের জনগনের ভ্রমণ ও অবসর বিনোদনের কেন্দ্র হিসেবে পরিণত হয়েছে এ উদ্যান। উদ্যানের ভিতরে বসার জন্য ৩০ টি বেঞ্চ তৈরি করা হয়েছে । বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ সুরভি উদ্যানে বৃক্ষরাজির নিচে বেঞ্চে বেসে তাদের ক্লান্তি দূর করে। ইয়োগা জোন নামে একটি সংস্থা প্রতিদিন উদ্যানের আরসিসি রোডে ইয়োগা করে যা স্বাস্থ্যকর নাগরিক জীবনযাপনের জন্য উৎসাহ জনক। শিশুদের খেলাধুলা ও শারীরিক অনুশীলনের জন্য দোলনা ও স্লিপারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আগত দর্শনার্থীসহ সকল মানুষের জন্য রয়েছে ওয়াশব্লক ব্যবহার করার সুবিধা। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা ওয়াশ ব্লক রয়েছে।  সুরভি উদ্যানের পূর্ব ও পশ্চিম পাশে দুটি গোলঘর নির্মাণ করা হয়েছে। পূর্ব পাশের গোলঘরে সিড়ির ব্যবস্থা করা হয়েছে। গোলঘরে বসে বিশ্রাম নেবার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।  উদ্যানে রয়েছে স্বাধীনতার চেতনার নিদর্শন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে রংপুর শহরের শহীদদের নাম সম্বলিত স্বাধীনতার মুর‍্যাল। তরুন প্রজন্মকে স্বাধিনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে শহীদদের নাম সম্বলিত স্বাধিনতার মুর‍্যাল অনন্য ভূমিকা রাখছে।

 

রংপুর টাউন হল

     ১৮৯১ সালে তৎকালীন ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট Mr. Francis Henry Skrine উদ্যোগে  টাউন হলের জমিটি  ভারত সরকার বরাবর হস্তান্তরিত হয়। উল্লেখ্য, সাবেক জেলা প্রশাসক জনাব মোহাম্মদ মাহে আলম “রংপুর টাউন হল উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ প্রকল্প-১৯৮০” এর মাধ্যমে টাউন হলের সার্বিক উন্নয়ন সাধন করেন।  বর্তমানে জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় রংপুরের সকল সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের প্রাণকেন্দ্র ঐতিহ্যবাহী এই রংপুর টাউন হল।


Share with :

Facebook Twitter